ব্রিটিশবিরোধী বীর চট্টলা কি ঢোঁড়াসাপ হয়ে গেছে? শতবর্ষী বিপ্লবীকে অনশন করতে হচ্ছে কেন?

execution_mutineers_g9bTp4dQuFbC

০১ লা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১১:৩১ |

বীরকন্যা প্রীতিলতা ওয়াদ্দোদারের স্মৃতিবিজড়িত অপর্ণাচরণ ও কৃষ্ণকুমারী স্কুল রক্ষায় আন্দোলনে নেমেছেন শতবর্ষী বিপ্লবী বিনোদ বিহারী চৌধুরী। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ঐতিহ্যবাহী এই দুইটি বালিকা বিদ্যালয় ভেঙ্গে বহুতল বাণিজ্যিক ভবন নির্মাণের যে উদ্যোগ নিয়েছে তার প্রতিবাদে গতকাল শনিবার সকালে বিপ্লবী বিনোদ বিহারী স্কুলের সামনে প্রতীক অনশন করেন। তার ডাকে সাড়া দিয়ে কর্মসূচিতে অংশ নেন নগরীর বিশিষ্ট নাগরিক এবং বিভিন্ন সংগঠনের কর্মিরা।

মূল ঘটনাটি কি? বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের দাবি উপেক্ষা করে মেয়র মহিউদ্দিন চৌধুরী স্কুল দুটি ভেঙ্গে বহুতল ভবন ও কমপ্লেক্স ণির্মানের ঘোষণায় অটল রয়েছেন। তার ঘোষণা মতে এটা নাকি “শিক্ষাবান্ধব” বহুতল ভবন হচ্ছে! এ নিয়ে মেয়রের পক্ষ থেকে পত্র পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তিও দেওয়া হয়েছে। সেই ঘোষণার এক জায়গায় মেয়র বলছেন…”আমি দৃঢ়তার সঙ্গে জানাতে চাই যে অপর্ণাচরণ ও কৃষ্ণকুমারী স্কুলের জন্য প্রস্তাবিত শিক্ষাবান্ধব ভবন ণির্মান হবেই।”

বিনোদ বিহারী এবং আন্দোলনে শরিক অপরাপর মানুষদের অভিমত; শুধুমাত্র বাণিজ্যিক স্বার্থের কারণেই মেয়র এই পদক্ষেপ নিচ্ছেন। তারা বলেছেন কর্পোরশনের টাকার জন্য অন্য আরো অনেক পথ তো খোলা ছিল! শেষে তারা এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দুটি রক্ষার জন্য প্রধান মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

সহযোদ্ধা বিপ্লবী প্রীতিলতার স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে বিনোদ বিহারী বলেন; অপর্ণাচরণ স্কুলের প্রথম প্রধান শিক্ষিকা ছিলেন ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অন্যতম শহীদ বীর কন্যা প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার। ১৯৩২ এই স্কুলে প্রধান শিক্ষিকা হিসেবে দায়িত্ব পালনের সময়ই প্রীতিলতা পটিয়া ধলঘাটে প্রথমবারের মত মাষ্টারদা সূর্য সেনের সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিলেন।

তবে সবচেয়ে আশ্চর্যজনক খবর হচ্ছে, যে চট্টগ্রামের ঐতিহ্য বিদ্রোহ করা, অন্যায়ের বিরুদ্ধো দাঁড়ানো, সেই চট্টগ্রামের মানুষ এই মহান বীর শহীদের স্মৃতি রক্ষার আন্দোলনে তেমন কেউ শরিক হয়নি! শহীদ জায়া বেগম মুশতারী শফি, বাসদ আহ্বায়ক মানস নন্দী, গণ সংহতি আন্দোলনের হাসান মারুফ রুমি, শিক্ষিকা ফৌজিয়া শফি, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, ছাত্র ফেডারেশন ও চারণ নামের সাংস্কৃতিক সংগঠন ছাড়া আর কোন বিবেকবান কে খুঁজে পাওয়া য়ায় নি!

এই কি সেই চট্টগ্রাম? তাহলে কি চট্টগ্রামের মানুষ পোর্ট আর পেনিনসুলাতেই বুঁদ হয়ে তাদের গর্ব তাদের ঐতিহ্য ধুলোয় মিশিয়ে দিলেও রা-কাড়বেন না? এই কি সেই মাষ্টারদা সূর্য সেন এর চট্টগ্রাম! শুনেছি চট্টগ্রামে শত শত মুক্তমনের মানুষের হাতে শত শত সংস্কৃতি বিকাশের কাগজ-টাগজ বেরোয়! “থিয়টারওয়ালা”র মত একটা উঁচুমানের প্রত্রিকাও বের হয় এই শহর থেকে! ভাবতে আরো অবাক লাগে বার আউলিয়ার দেশ বলার সাথে সাথে এই চট্টগ্রামকে বীর ভোগ্যা জনপদও বলা হতো একসময়! আজ সেই চট্টগ্রামে প্রীতিলতার স্মৃতি বাঁচাতে একজন শতবর্ষী মানুষকে অনশন করতে হচ্ছে!!

খবরটা দৈনিক সমকাল এ ছাপা হয়েছে,১ লা ফেব্রুয়ারী তারিখে।
ছবিঃ সমকাল থেকে নেওয়া।

লেখাটির বিষয়বস্তু(ট্যাগ/কি-ওয়ার্ড): প্রীতিলতা। ;
প্রকাশ করা হয়েছে: সমসাময়ীক রাজনীতি বিভাগে । সর্বশেষ এডিট : ১০ ই জুন, ২০১০ রাত ২:৩৩ |বিষয়বস্তুর স্বত্বাধিকার ও সম্পূর্ণ দায় কেবলমাত্র প্রকাশকারীর…

৫২১ বার পঠিত০৬৯২২

মন্তব্য দেখা না গেলে – CTRL+F5 বাট্ন চাপুন। অথবা ক্যাশ পরিষ্কার করুন। ক্যাশ পরিষ্কার করার জন্য এই লিঙ্ক গুলো দেখুন ফায়ারফক্স, ক্রোম, অপেরা, ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার।

৬৯টি মন্তব্য
১-৩৮
১. ০১ লা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১১:৩২
সামদ বলেছেন:

মেয়রের সামনে সবাই বোধহয় কুকড়ে থাকে!
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১২:৫৩
লেখক বলেছেন: বিনোদ বিহারীতো থাকেন নি! শতবর্ষী মানুষটাতো ঠিকই ছুটে গেছেন! চট্টগ্রামে কি আর কোন সচেতন নেকা-কর্মিদের বিবেক জাগ্রত হলো না!! প্রীতিলতার স্মৃতি রক্ষার দায়িত্বটা কি শুধু ওই “হিন্দু” মানুষটার একার!!!
২. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১২:০৮
চাণক্য বলেছেন: অতঃপর কি বিনোদ বাবুও আওয়ামী লীগ কর্তৃক রাজাকার বলিয়া ঘোষিত হইবেন?
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১:০৫
লেখক বলেছেন: রাজাকার “ঘোষিত” করিবার একচ্ছত্র কর্তৃত্ব যে শুধু আওয়ামী লীগ লইয়াছে এমন শুনি নাই! রাজাকার তো রাজাকারই। এর আবার ঘোষিত-অঘোষিত কি?
৩. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১২:১৯
পারভেজ রবিন বলেছেন: তীব্র নিন্দা এই জঘন্য পদক্ষেপের। এসবই মেয়র মহিউদ্দিনের একগুয়েমির বহিপ্রকাশ, একই সাথে তিনি তার ক্ষমতাও প্রকাশ করতে চান। ওই স্কুলটি একটি ঐতিহাসিক স্থান। এটি শুধু রক্ষাই নয় সংস্কারও প্রয়োজন। সবাইকে জানানো প্রয়োজন ইতিহাস। এবং এই প্রতিবাদে সবাইকে শরিক হবার আহ্ববান জানাই।
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১:৪৮
লেখক বলেছেন: চট্টগ্রামের মানুষের গর্জে ওঠা একান্ত কর্তব্য। আমাদের সবারই অকুণ্ঠ সমর্থন দেওয়া কর্তব্য।

ধন্যবাদ আপনাকে।
৪. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১২:২৫
আহসান হাবিব শিমুল বলেছেন: হমমম.।খবরটা সকালে দেখলাম…. চট্টগ্রামের মানুষ জেগে ওঠুক…মহীউদ্দিনের লোভের জিহ্বা টেনে ছিঁড়ে ফেলুক……….
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১:৪৯
লেখক বলেছেন: ও এখন আওয়ামী লীগের গলায় “গরম সিঙ্গাড়া” হয়ে বিধে আছে!
৫. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১২:৪০
অরণ্যদেব বলেছেন: এই স্কুল রক্ষার আন্দোলনে যদি অন্যান্য দলগুলিও অংশ না নেয় তাহলে বুঝতে হবে বিনোদ বিহারীরর মত মানুষদের সন্মানের সাথে বেঁচে থাকা অনেকে চায় না।

পোস্টের জন্য লেখককে ধন্যবাদ।

অ.ট. আপনার বাড়ি কি চট্টগ্রামে?
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:২৪
লেখক বলেছেন: হম। ব্যাপারটা বোধহয় অনেকে “হিন্দুর সম্পদ রক্ষা”র বলে মনে করতে পারেন।

না ভাই আমার বাড়ি চট্টগ্রামে নয়।
৬. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১২:৫৯
হাশেম বলেছেন: স্কুলের সম্পদ যিনি দান করে গেছেন তাঁর অন্তিম ইচ্ছাকে গুড়িয়ে দিয়ে বাণিজ্য করার সাহস সিটি মেয়র কিভাবে করছেন?

উপদেষ্টা হোসেন জিল্লুর প্রীতিলতার স্মৃতি রক্ষার্থে ভবন নির্মাণ করার জন্য ৬ কোটি টাকার অর্থ বরাদ্দ দেন যা সিডিএ কর্তৃক অনুমোদিত।

সেটি বাস্হবায়ন না করে জনমত উপেক্ষা করে স্কুলের জায়গার উপর সিডিএ পরিকল্পনাবিদগনের অননুমোদিত বাণিজ্যিক ভবণ করলে নিজের কোটি কোটি টাকা ধান্ধা হবে।

চট্টলাবাসী, আসলে আমরা সবাই তার কাছে জিম্মি হয়ে আছি।
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:০৬
লেখক বলেছেন: আপনারা জিম্মিদশা মেনে নিচ্ছেন কেন?

তার কি এতই জনপ্রিয়তা? প্রতিবাদ,

প্রতিরোধ না করলে সে তো সবাইকেই জিম্মি করবে!
৭. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১:০৮
অ্যামাটার বলেছেন: দু:খ জনক।

বিণোদ বিহারী আবারও প্রমাণ করলেন, ‘তারুণ্যকে বয়সের ফ্রেমে বাঁধা যায় না’।
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:১২
লেখক বলেছেন: বিনোদ বিহারী চৌধুরী লাল সালাম।
৮. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১:১৪
তারার হাসি বলেছেন:

বিপ্লবী মানেই একজন বিপ্লবী, তাঁর কোন বয়স নাই। তিনি তা এই আন্দোলনে শরীক হয়ে তা জানিয়ে দিলেন।

বিপ্লবী বিনোদ বিহারী এর জন্য আমার শ্রদ্ধা।

রুখে দাঁড়াবেই মানুষ।
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:৩৭
লেখক বলেছেন:

ভাল বলেছেন।

ধন্যবাদ।
৯. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১:২৩
সত্যান্বেষী বলেছেন: @লেখক: এখন কেমন আছেন?
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:১০
লেখক বলেছেন:

একেবারে সুস্থ না। তবে কালকের চেয়ে একটু ভাল। প্রুফ দেখার কাজটা শেষ করতে পেরেছি। ওটাই আমার শিরপিড়া বাড়িয়ে দিয়েছিল অনেকটা।
১০. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:০৮
সোনার বাংলা বলেছেন:

মহিউদ্দিন কে এবার সাইজ করা হবে…..

০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:৩৮
লেখক বলেছেন: বিনোদ বিহারীরা “সাইজ” চায় না। চায় শুধু প্রীতিলতার স্মৃতি যাতে ধ্বংস না হয়।
১১. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:১৩
আলমগীর কুমকুম বলেছেন: তবে সবচেয়ে আশ্চর্যজনক খবর হচ্ছে, যে চট্টগ্রামের ঐতিহ্য বিদ্রোহ করা, অন্যায়ের বিরুদ্ধো দাঁড়ানো, সেই চট্টগ্রামের মানুষ এই মহান বীর শহীদের স্মৃতি রক্ষার আন্দোলনে তেমন কেউ শরিক হয়নি! শহীদ জায়া বেগম মুশতারী শফি, বাসদ আহ্বায়ক মানস নন্দী, গণ সংহতি আন্দোলনের হাসান মারুফ রুমি, শিক্ষিকা ফৌজিয়া শফি, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, ছাত্র ফেডারেশন ও চারণ নামের সাংস্কৃতিক সংগঠন ছাড়া আর কোন বিবেকবান কে খুঁজে পাওয়া য়ায় নি!

খুবই খারাপ লাগলো জেনে। প্রীতিলতার স্মৃতি বাঁচানোর জন্য একজন শতবর্ষী মানুষকে অনশন করতে হয়! পোস্টের জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:২১
লেখক বলেছেন:

আমার কষ্টটা আরো একটি জায়গায়। আমি অবাক হয়ে লক্ষ্য করলাম, এই ব্লগে অন্তত

২০/২৫ জনের মত চট্টগ্রামবাসী আছেন। তারা অনেকেই হয়ত শুনে থাকবেন এই আন্দোলনটির কথা। তাদের কারো কাছ থেকে এধরণের একটি পোস্ট সর্বাগ্রে আসা উচিৎ ছিল!
১২. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:২০
ফারহান দাউদ বলেছেন: মেয়র মহিউদ্দিন বইলা কথা!
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:৩৯
লেখক বলেছেন: তিনি কি পূর্বাঞ্চলের “মাফিয়া” হয়ে উঠেছেন?!
১৩. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:২৪
অচেনা সৈকত বলেছেন: লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের উচিত এখনই এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়া এবং স্কুলটিকে রক্ষার ব্যবস্হা করা।
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:৪১
লেখক বলেছেন:

প্রধান মন্ত্রীর কাছে ওরা প্রার্থনা জানিয়েছেন। আশা করা যায় তিনি বা তার দল বিষয়টি

ঐহিহ্য আর কৃতজ্ঞতার আলোকে দেখবেন।
১৪. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:৪৩
মনজুরুল হক বলেছেন:

পাঠকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করছি। অসুস্থ হওয়ার কারণে আমনাদের সঙ্গে থাকতে পারছি না। তাই ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। আগামী কাল কথা হবে। শুভেচ্ছা সবাইকে।
১৫. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ সকাল ৮:০৮
আশরাফ মাহমুদ বলেছেন: বিপ্লবে অনেকে ভাত পায় না! অনেকে ভাত আগলে রাখার জন্য বিপ্লব নাকচ করতে চায়।
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১০:৫৭
লেখক বলেছেন:

চমৎকার মন্তব্য। ধন্যবাদ।

মহিউদ্দিন নামক লোকটি অচিরেই আওয়ামী লীগের গলার কাটা হয়ে উঠবে।
১৬. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ সকাল ৮:৩১
শান্তির দেবদূত বলেছেন: খবরটা পড়ে খুবই কষ্ট পেলাম ……..

আজব দেশ , সত্যিই বড় আজব দেশ আমাদের …….
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১০:৫৮
লেখক বলেছেন: হেথায় স্কুলেরা পালিয়ে বেলায় ছাত্র থাকে বসে…….
১৭. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ সকাল ৮:৩২
রোবোট বলেছেন: মেয়র মহিউদ্দীনকে থাপড়াইতে চাই।

শতবর্ষী বিনোদবিহারীর নু্ব্জ দেহে যে দৃড়তা, মনে যে সাহস তা দেখে আমরা নত হয়ে যাই।

এই পোস্ট স্টিকি করা হোক।
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১১:১৭
লেখক বলেছেন:

আশা করব বিনোদ বিহারীর দৃঢ়তা দেখে হলেও

তরুণ প্রজন্ম স্কুলটি রক্ষায় এগিয়ে আসবেন।
১৮. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ সকাল ৮:৩৮
বিডি আইডল বলেছেন: মহিউদ্দিন চট্রগ্রামে অনেকের কাছেই মূর্তিমান আতঙ্ক..নানা কাজেই আমি দেখেছি সরকারী-বেসরকারী লোকজন তাকে কি চোখে দেখে..স্বেচ্ছাচারিতা এবং স্বৈরাচারি মনোভাব নিয়ে আজ যুগের অধিক নগর পিতা হয়ে চট্রলা বাসীর বুকে জগদ্দলের মত বসে আছে….অপর্ণা চরণ, কৃষ্ণকুমারী দুটিই নগরীর ঐতিহ্য বহন করে। কৃষ্ণকুমারী স্কুলে আজ ৮-১০ বছর যাবৎ বিকালের দিকে কম্পিউটার স্কুল চলে…এবার মনে হয় তার সাধের প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়টিকে এদিকে আনার চিন্তা চলছে…

তীব্র ধিক্কার এবং প্রতিবাদ জানাই
০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১২:১৪
লেখক বলেছেন: আমার মতে এতে শুধু বিনোদ বিহারী নয়, চট্টগ্রামের আওয়ামী লীগ-বিএনপির মানুষদেরও সমবেত হওয়া উচিৎ।

ঢাকার উসমানী উদ্যানের গাছগুলো কিন্তু সেবার বেঁচে গিয়েছিল!
১৯. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৮:৪০
সত্যান্বেষী বলেছেন: ‘শহীদ জায়া বেগম মুশতারী শফি, বাসদ আহ্বায়ক মানস নন্দী, গণ সংহতি আন্দোলনের হাসান মারুফ রুমি, শিক্ষিকা ফৌজিয়া শফি, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, ছাত্র ফেডারেশন ও চারণ নামের সাংস্কৃতিক সংগঠন ছাড়া আর কোন বিবেকবান কে খুঁজে পাওয়া য়ায় নি!’

বাসদ, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, ও চারণ- এরা সবাই আসলে বাসদ। আমার জানামতে এই বাসদই (বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল – খালেকুজ্জামান) এখন পর্যন্ত এমন সব ইস্যুতে সাথে থাকে যেখানে এমনকি আর কোন বামদেরও খুজে পাওয়া যায় না।

বিষয়টিকে হাইলাইট করে (সমকাল এবং ব্লগে) প্রীতিলতার প্রতি আপনিও যে সম্মান দেখালেন তাতে আমি অভিভূত।

অভিবাদন বিপ্লবী বিনোদ বিহারী চৌধুরী।
০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১:২৮
লেখক বলেছেন: অভিবাদন বিপ্লবী বিনোদ বিহারী চৌধুরী। বিপ্লব দীর্ঘজীবী হোক। খড়কুটো হয়ে ভেসে যাক অস্তাচলের ঘৃণ্য আত্মম্ভরী রাবণের দল।
২০. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৮:৫১
মনজুরুল হক বলেছেন:

আমি শারীরকভাবে খুব একটা সুস্থ নই। থাকলে হয়তবা আরো সবাইকে আহ্বান জানাতাম আমরা একসাথে চট্টগ্রামে যাওয়ার জন্য।

আর একটি ব্লগে আমার চট্টগ্রামের বন্ধু সমরেশ বৈদ্য এই পোস্ট করেছেন। ছাত্র মৈত্রির কয়েকজনকে অনুরোধ করেছি। ওরা যখন “বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রি” ছিল তখনকার সময় হলে অনুরোধ করা লাগত না।

আমি প্রয়োজনে প্রধানমন্ত্রির কাছেও যাবার চেষ্টা করব। জানি না কি পারব! তবে চাইছিলাম চট্টগ্রামের মানুষরা এগিয়ে আসুক! কিন্তু সব চাওয়া কি ফলবতী হয় !!
২১. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৮:৫৩
ঘনাদা বলেছেন: কি হয়েছে? কেমন অসুস্থ?
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৯:০০
লেখক বলেছেন: সাইনাস, মাইগ্রেন..এইসব আরকি। তবে মাথার ভেতরে কেথাও একটা মটরদানা বড় হচ্ছে। অতিরিক্ত টেন্স, হার্ড লেবর হলে ব্যাথাটা শুরু হয়। দিন তিনেক থাকে,প্রচন্ড ব্যাথা হয়। আজ শেষ দিন। কোন ট্যাবলেটে কাজ হয় না। ওনলি সেডিটিভ!
২২. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৮:৫৬
প্রশ্নোত্তর বলেছেন: মন্জুর ভাই, ব্লগে একটা আন্দোলনের ডাক দেন।

কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানাই এই পোস্ট স্টিকি করার।
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৯:০৬
লেখক বলেছেন: তাতে কি ইতিবাচক কিছু হবে? এই ব্লগে কমপক্ষে ২০/২৫ জন চট্টগ্রামের ব্লগার আছেন। ছবির ব্লগ-ট্লগ হলে দেখি তারা এর ওর বাড়ির পাত্তা লাগান! এখন অব্দি তো কাউকেই দেখলাম না। ভোরের কাগজ চট্টগ্রাম শাখার কয়েকজন এবং কিছু নতুন ছাত্র আজ এই আন্দোলনে যোগ দিয়েছে। আমি মানস এর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছি।দেখি কাল সকাল পর্যন্ত।যাদের অনুরোধ করেছি তারা কেন্দ্রের নির্দেশ না থাকলেও যাবে। তবে বিনোদ বিহারী চৌধুরীরা যদি প্রলোভনে সরে আসেন তাহলে তো কিছুই করণীয় থাকবে না।
২৩. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৯:১০
প্রশ্নোত্তর বলেছেন:

হতাশ হবেন না।

চট্টগ্রামের একটা গ্রুপ আছে, ওদের কাউকে পেলে চট্টলা ব্লগারদের ভয়েস একত্র করা সহজ হবে; কেউ না কেউ এগিয়ে আসবেই। একটা স্ট্যান্ডার্ড টেক্সট তৈরি করতে পারলে ই-মেইলেও ভালো ক্যাম্পেইন চালানো সম্ভব।

সাথে আছি।
০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:১৪
লেখক বলেছেন: বল পাই।
২৪. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৯:২২
মনজুরুল হক বলেছেন:

বীরকন্যা প্রীতিলতা ওয়াদ্দোদারের স্মৃতিবিজড়িত অপর্ণাচরণ ও কৃষ্ণকুমারী স্কুল রক্ষায় এগিয়ে আসুন। ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অগ্নিকন্যা প্রীতিলতার স্মৃতি রক্ষা করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। এই স্কুলটি ভূমিদস্যুতার কবলে পড়েছে। আসুন আমরা শতবর্ষী বিনোদ বিহারী চৌধুরীর পাশে দাঁড়াই

আমি এই টেক্সট টা দিয়ে মেইলে ক্যাম্পেইন শুরু করেছি।
২৫. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৯:৩৯
প্রশ্নোত্তর বলেছেন: ধন্যবাদ মন্জুর ভাই ।

বিনীতভাবে একটা অনুরোধ করি – টেক্সটা কি আরেকটু আমজনতা-ফ্রেন্ডলি করা যায়? এটাতে প্রীতিলতা আর বিনোদবিহারীই প্রধান হয়ে উঠেছে; স্কুল রক্ষার মেসেজটা সাধারণ মানুষ ঠিক-ঠাক মত পাবে না বলেই মালুম হচ্ছে। আমি ঘন্টাখানেক পরেই ইমেইল করতে শুরু করব।
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৯:৫১
লেখক বলেছেন: ভাল পয়েন্ট। আমি একটু পরেই টেক্সটা আরো গণমুখি করে দিচ্ছি।
২৬. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৯:৫৬
|জনারন্যে নিসংঙগ পথিক| বলেছেন:

এই শহরেই আমার জন্ম ও বেড়ে উঠা, তাই খুব আহত বোধ করছি মেয়রের এইসব কাজে । কারণ, উনাকে একসময় আমি আসলেই পছন্দ করতাম তার কাজের চিন্তাভাবনা আর গতির জন্য। প্রথম ফাটল ধরে মেহেদীবাগে হরিজনদের জমি দখলের অপচেষ্টা দেখে, বিপ্লবী বিনোদবিহারী সেখানেও প্রতিরোধ তৈরী করেছিলেন। আমার প্রথম চাকরীর (স্বল্পকালীন) সাথে সিটি কর্পোরেশান এর একটা যোগ ছিলো, বিপ্লবী বিনোদবিহারী চৌধুরীর এক সম্মেলনে থাকায় মেয়র আমাদের কয়েকজনের নামে বিভাগীয় প্রধানের কাছে কটুক্তি করেন।

আগের সেই মহিউদ্দিন আর নাইরে ভাই।

তবে নিশ্চিত থাকতে পারেন বিনোদবিহারী যেখানে তাঁর বুড়ো হাড় নাড়িয়েছেন, মেয়র এই অপকর্ম শেষ করতে পারবেন না। এই প্রত্যয় আমাদের আছে।
০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৩:১৫
লেখক বলেছেন:

“তবে নিশ্চিত থাকতে পারেন বিনোদবিহারী যেখানে তাঁর বুড়ো হাড় নাড়িয়েছেন, মেয়র এই অপকর্ম শেষ করতে পারবেন না। এই প্রত্যয় আমাদের আছে”।

আপনার এই আশাবাদ যেন সবার মধ্যে সংক্রমিত হয়।

আপনাকে অনেক অনেক অভিনন্দন।
২৭. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১০:০১
|জনারন্যে নিসংঙগ পথিক| বলেছেন: আমার ছোট ভাই ফোন করে জানিয়েছে ওরা নির্দলীয়ভাবে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একদিন মানব্বন্ধনের পরিকল্পনা করেছিলো, কোনো শিক্ষকরাই রাজি হচ্ছেন না.। অধিকাংশ স্কুলই কিন্তু কর্পোরেশান এর.। তারপর ও আশা রাখছি.। দেখা যাক.।
০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:১৬
লেখক বলেছেন: আমিও রাতে জেনেছি, ওখানে কালও একবার মানব বন্ধনের চেষ্টা করা হবে।
২৮. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১০:০৮
অচেনা সৈকত বলেছেন: প্রধানমন্ত্রী এ ব্যাপারে বিরক্ত বোধ করেছেন ও শিক্ষামন্ত্রীকে ব্যবস্হা নিতে বলেছেন ( সূত্র: প্রথম আলো)। দেখা যাক, স্কুলটা রক্ষা পায় কি না।
০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৩:১৬
লেখক বলেছেন: ওরাও প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। আশাবাদী আমরা সবাই যে, স্কুলটা রক্ষা পাবে।
২৯. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১০:১১
মনজুরুল হক বলেছেন:

মাষ্টারদা সূর্য সেন এর সহযোদ্ধা বীর কন্যা প্রীতিলতা যে স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা ছিলেন সেই অপর্ণাচরণ ও কৃষ্ণকুমারী স্কুল দুইটি চট্টগ্রামের মেয়র মহিউদ্দিন ভেঙ্গে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। সেখানে তিনি বাণিজ্যিক ভবন তুলবেন! এই বিপ্লবীদের স্মৃতিবিজড়িত স্কুলটি রক্ষার জন্য মাষ্টারদার আর এক সহযোদ্ধা বিনোদ বিহারী আন্দোলন করে যাচ্ছেন। সাথী হয়েছেন আরো কিছু সংগঠনের কর্মিরা।

আপনারা যে যেখানে আছেন নিজ নিজ অবস্থান থেকে চাপ প্রয়োগ,অনুরোধ, ওপর মহলে যোগাযোগ করে এই স্কুলটি রক্ষা করুন। আমাদের বিশ্বাস আমরা সবাই নিজ নিজ ক্ষেত্র থেকে প্রচার চালালে,স্বশরীরে উপস্থিত থাকলে,পত্র-পত্রিকায় প্রচার চালালে, প্রয়োজনে আর্থিক সহায়তা করলে, শতবছরের এই স্কুল দুইটি রক্ষা করতে পারতাম। এখনো সময় ফুরিয়ে যায়নি। আসুন, আমরা স্কুল দুইটি রক্ষা করি।

এটা দেখতে পারেন। শরীর ভাল না। আর বেশী ভাবা গেল না।
৩০. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১০:১৪
প্রশ্নোত্তর বলেছেন: অনেক অনেক ধন্যবাদ মন্জুর ভাই। আপনি শরীর খারাপ নিয়েও যতটা করলেন, অভাবনীয়। টেক গুড কেয়ার অব ইয়োরসেলফ কমরেড। আমরা আছি।
০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৩:৪৯
লেখক বলেছেন: বল পাই। সঙ্গবদ্ধ হই। রুখে দাঁড়াই।
৩১. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১০:২৪
|জনারন্যে নিসংঙগ পথিক| বলেছেন: মনজুরুল হক, ধন্যবাদ। আপনার টেক্সটটা ব্যাবহার করছি।
০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১০:৪০
লেখক বলেছেন: নিশ্চই করবেন। ধন্যবাদ।
৩২. ০২ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১১:২২
নাস্তিকের ধর্মকথা বলেছেন:

মনজুরুল হককে ধন্যবাদ।

পোস্টটি স্টিকি করা হোক….
১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১২:৩৮
লেখক বলেছেন: ধন্যবাদ নাস্তিকের ধর্মকথা।
৩৩. ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৩:৫৩
ঘনাদা বলেছেন: পোস্টটি স্টিকি করা হোক….
১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১২:৪১
লেখক বলেছেন: আন্দোলনের প্রাথমিক বিজয় ঘটেছে।
৩৪. ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ৩:৫৬
জাতিশ্বর বলেছেন: পোস্টটি স্টিকি করা হোক। স্কুল দুইটি রক্ষা করা হোক।
১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১২:৪২
লেখক বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে।
৩৫. ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১২:২৫
সত্যান্বেষী বলেছেন: অপর্ণাচরণ ও কৃষ্ণকুমারী স্কুলের আপডেট কি? বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ।
৩৬. ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১২:৩৭
মনজুরুল হক বলেছেন:

স্কুল দুটির সর্বশেষ আপডেট হচ্ছে, সরকারের নির্দেশে আপাতত ভাঙ্গা হচ্ছে না। তবে ভীন্ন একটা সুক্ষ্ণ চাল আছে। স্কুল দু’টা সংস্কার করা হবে।

সংস্কার শব্দাতে আমার যথেষ্ট ভীতি আছে। সেটা আমি মেইলে আন্দোলনরত দের জানিয়েও দিয়েছি। তবে যা-ই ঘটুক এক্ষুণি বোধ হয় কিছু হচ্ছে না আর। পরে ওরা অন্য কায়দায় এগুবে। মহিউদ্দিন সহজে মুখ ফেরানোর বান্দা না। সে আবারো মুখ দেবে। দেবেই।
৩৭. ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১:০২
সত্যান্বেষী বলেছেন: আন্দোলন কিছুটা ফসল তুলেছে, এটুকুই পাওয়া। ধন্যবাদ।
৩৮. ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ১১:৩৯
মনির হাসান বলেছেন: চমৎকার অবস্থা … এতো কাহিনি হইলো .. খেয়াল করি নাই ..

স্যরি মনজু ভাই ।

আর বস্‌ … ঝিমাই না .. প্রচন্ড দৌড়ের উপর আছি ..

আগামী রোববার একটা সাবমিশন আছে …

আর সবাই একটু রিলাক্স মুডে আছি … চিন্তার কিছু নাই ..

আপনি দায়িত্ব নিয়া থাকেন .. ঐ টাই মূখ্য … কথা সামনা সামনি হবে .. শুক্রবার দেখা হবে .. এইবার শিয়র কথা দিতাছি ..

উপমাকে সারিয়ে তুলতে হবেই … সবাই আছি আমরা ।
১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০০৯ রাত ২:৫৮
লেখক বলেছেন:

বিশাল শক্তির আধার হয়ে উঠছে আমার প্রিয় মানুষেরা। প্রিয় মানুষদের এমন জোরাল অভিব্যক্তি আশাবাদী করে তোলে। কাল দেখা হচ্ছে ।

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s