ফ্রেডারিক এঙ্গেলস-কার্ল মার্কস দ্য গ্রেট টিচার অব হিউম্যান রেইস

46999056_10217842759444409_6917791682071101440_n

কার্ল মার্কসকে আমরা যখন উর্ধ্বে তুলে ধরি তখন অবধারিত ফ্রেডারিক এঙ্গেলস চলে আসেন। পৃথিবীর ইতিহাসে বন্ধুত্বের অনেক মনগ্রাহী বর্ণনা আছে, কিন্তু মার্কস-এঙ্গেলস-এর বন্ধুত্বের মত আদর্শীক বন্ধনে গড়ে ওঠা বন্ধুত্বের নজির বিশ্বে বিরল। বিশ্বের মানুষ যতদিন কার্ল মার্কসের নাম স্মরণ করবে ততদিন এঙ্গেলসকেও স্মরণ করবে।

 

মার্কস সেই যে সাত সকালে ব্রিটিশ মিউজিয়ামে যেয়ে পড়ে থাকেন, সারা দিনমান তাঁর আর খোঁজ থাকে না। বড় মেয়েটা মারাত্মক অসুস্থ্য। এই অবস্থায় জেনি সংসার চালাতে হিমসিম খাচ্ছেন। এই সময় যে মানুষটি সব কিছু ফেলে তাঁর ভীষণ অপছন্দের সেই ওকালতির কাজ করতে ছুঁটলেন। সেই সাথে বাবার কাছ থেকেও কিছু টাকা নিয়ে জেনিকে দিলেন, সেই মহান মানুষটি ফ্রেডারিক এঙ্গেলস। তার দেওয়া অর্থে কিছুদিনের রসদ জুটল বিশ্বকে বদলে দেয়া মহান শিক্ষক, দার্শনিক কার্ল মার্কসের পরিবারে। ফ্রেডারিক এঙ্গেলস মানুষটি এমনই।

 

শত বাধা-বিপত্তি উপেক্ষা করে তারা যখন ‘কমিউনিস্ট পার্টির ইশতেহার’ লিখলেন, সেটা মার্কসের ‘অবদান’ হয়ে রইল। “দ্য কন্ডিশন অব দ্যা ওয়ার্কিং ক্লাস ইন ইংল্যান্ড” কিংবা যৌথভাবে তাঁর ও মার্কসের “জার্মান আইডিওলজি” লিখলেন, সেখানেও মূলত আলোকিত মার্কস। এঙ্গেলস নন! তিনি যদি “পরিবার ব্যক্তিগত মালিকানা ও রাষ্ট্রের উৎপত্তি” গ্রন্থখানা লিখে আর কিছু নাও লিখতেন তাতেও বিশ্ব এক অসামান্য দিক নির্দেশনা পেত ওই মহামূল্য গ্রন্থটি থেকে।

 

এই প্রচারবিমুখ বন্ধুঅন্তপ্রাণ অসাধারণ পণ্ডিত মানুষটি ওরকমই। তাঁর প্রাণপ্রিয় বন্ধুটি যেদিন মারা গেলেন সেদিনও এঙ্গেলস এক যুগান্তকারী বন্ধুত্বের নজির স্থাপন করলেন মাত্র একটি বাক্যে! লিখলেন-

“১৪ মার্চ বি‌কেল ঠিক পৌ‌ণে তিনটায় বি‌শ্বের সর্ব‌শ্রেষ্ট জী‌বিত চিন্তা‌বিদ চিন্তা থে‌কে বিরত হ‌য়ে‌ছেন । মাত্র মি‌নিট দু‌য়ে‌কের জ‌ন্যে তাঁ‌কে একা রে‌খে অন্যত্র গি‌য়ে‌ছিলাম আমরা । ফি‌রে এসে দে‌খলাম, নিজস্ব আর্ম‌চেয়ারটা‌তে শা‌ন্তি‌তে ঘু‌মি‌য়ে আছেন তি‌নি, ঘু‌মি‌য়ে আছেন চির‌দি‌নের ম‌তো।”

 

এই হলো ফ্রেডারিক এঙ্গেলস। ১৮২০ সালের ২৮ নভেম্বর জার্মানির এক ধনী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। আজ তাঁর ১৯৯ তম জন্মদিন। এদিনে আপনাকে স্যালুট কমরেড! আপনি জীবনে যেমন অকৃত্রিম বন্ধু কার্ল মার্কস থেকে আলাদা হতে চাননি, মরণের পরও আমরা আপনাকে সেভাবে স্মরণ করি-

 

ফ্রেডারিক এঙ্গেলস-কার্ল মার্কস দ্য গ্রেট টিচার অব হিউম্যান রেইস।

 

২৮ নভেম্বর, ২০১৯

 

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  পরিবর্তন )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  পরিবর্তন )

Connecting to %s